এ কি হলো বসুধার?

তাইয়্যেবা নুসরাত রুপা

আজকের দুনিয়ার কখনো কি ভেবেছিল কেউ
সকল ব্যস্ততা ফেলে ঘরবন্দী হতে হবে?
কখনো কি ভেবেছিল কেউ
সকল আনন্দ-ফূর্তি ছেড়ে সারাদিন শুধু
আল্লাহকে স্মরণ করবে?
কখনো কি ভাবা হয়েছিল
সকল সম্পর্ককে পিছনে ফেলে
একা একা কারাবন্দী হতে হবে?
কখনো কি ভাবতে পারা গেছিল
পুরো বিশ্বের মানুষ একইভাবে থমকে যাবে?
কেউ কি কখনো ভেবেছিল যে-
সারাক্ষণ জনাকীর্ণ যানবাহনে ব্যস্ত থাকা সেই চিরচেনা ঢাকা
আজ এক নতুন রূপ ধারণ করবে?
কেউ কি ভুলেও ভেবেছিল যে-
সকল হৈ-হুল্লোড়, রঙ-তামাশা ছেড়ে
মৃত্যুর ভয়ে আল্লাহর নাম জপতে হবে?
কেউ কি স্বপ্নেও ভেবেছিল যে-
সারাক্ষণ নানা ব্যস্ততায় মেতে থাকা
পৃথিবী আজ এভাবে নিস্তব্ধ হবে?
কেউ কি কখনো আশা করেছিল-
সকল রক্তের মায়া-মমতাকে বিসর্জন দিয়ে
আজ নিরুপায় হয়ে ঘরে বসে থাকতে হবে?
এ কি অদ্ভুত রূপ ধারণ করলো পৃথিবী!
এটা কি সেই পৃথিবী, যেখানে দিন-রাত মানুষ শুধু বিত্তের পিছনে ছোটে?
এগুলো কি সেই মানুষ যারা সামান্য
ছুটির অভাবে নিজের পরিবারকে সময় দিতে পারতোনা?
হ্যাঁ………. তারাই আজ লকডাউনে।
হ্যাঁ………. সেই পৃথিবী-ই আজ বিমুখ প্রান্তরে।
হ্যাঁ………. সেই পুরাবাসীরাই আজ ভবঘুরে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।