এ কেমন চিকিৎসা জগৎ

মোঃ মহিউদ্দিন

প্রভাষক, ভোলা ইসলামিয়া ইউনানী মেডিকেল কলেজ।

 

– হায়রে এ কেমন চিকিৎসা জগৎ
পায়ে হোঁচট খেলে দেয় আলট্রাসনোগ্রাফি,
এ কেমন আজব থেরাপি।
অতি সামান্য আঘাতেও লিখে দেয়
ল্যাব টেস্ট সিটিস্কিন,
এই অভিনব কায়দায় প্রতারণা করে
অপ চিকিৎসা করছে রাত দিন।
টেস্ট করিয়ে মোটা অংকের টাকা নিয়ে
প্রেসক্রিপশনে ঔষধ লিখেন মানহীন।
আবার অনেকে ভুয়া বিজ্ঞাপন দেয় ডিগ্রীহীন।
মনে হয় এদের জীবন-জীবিকায়
অনেক টাকার প্রয়োজন,
তাই তো টাকা কামানোর জন্য এসব অপচিকিৎসার আয়োজন।
ডায়াগনস্টিকের মালিক হয়েছে
সেই দিনের মদখোর,
সেথায় আবার প্যাথলজিস্ট
সেই দিনের ছিঁচকে চোর
যেন ব্যবসা নয় হারামখোর।
রোগী একবার প্রবেশ করলে
ডায়াগনস্টিকের করিডর
চতুর্দিক থেকে ঘিরে ধরে
একজাতীয় ধান্দাবাজ ও টাকা চোর।
চিকিৎসক সাহেব বসে রয়েছেন
ডায়াগনস্টিকের এসি রুমে,
তিনি এটুজেড ল্যাব টেস্ট দিবেন
কোনরকম ছাড়বেন না কমে।
এদের টাকা হাতিয়ে নেওয়া দেখে
রোগীকে ছেড়ে যায় যমে
তবুও এরা ছাড়ে না কমে।
সারা বাংলায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে
সায়েদের মত প্রতারক,
অতি শীঘ্রই ব্যবস্থা নেন দেশ ও জাতির
রক্ষক ও প্রশাসক।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।