ভোলায় দুইদিন ব্যাপী সুপণ্য মেলা শুরু

মাহে আলম মাহী : এসইপি সুপণ্য আয়োজিত জানালা বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক বাস্তবায়িত ভোলায় এই প্রথমবার আয়োজন করা হয়েছে এসইপি সুপণ্য মেলা ২০২৪। ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে পোল্ট্রি খামারিদের ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি দুই দিন ব্যাপী সুপণ্য মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে।
নিরাপদ দেশি মুরগির মাংস ও ডিম, নিরাপদ ডেইরী পণ্য প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজন করা হয়েছে ২ দিন ব্যাপী এসইপি সুপণ্য মেলা। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে গ্রামীন জন উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন মহিন ফিতা কেটে এ মেলার উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি প্রতিটি স্টল ঘুরে ঘুরে খামারীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।
এসময় গ্রামীন জন উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক (এডভোকেসি, কমপ্ল্যায়েন্স এন্ড ট্রেনিং) হুমায়ুন কবির, অতিরিক্ত পরিচালক (মানব সম্পদ উন্নয়ন) মোঃ আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পরিচালক (হিসাব এন্ড অর্থ) মোঃ মোস্তফা কামাল, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ মো. কামরান হোসেন তাজিন, জানালা বাংলাদেশ লিমিটেডসহ গ্রামীন জন উন্নয়ন সংস্থার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এর সার্বিক সহযোগিতায় গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা (জিজেইউএস) এবং জানালা বাংলাদেশ যৌথভাবে এই মেলার আয়োজন করে। আয়োজকরা জানান, স্থানীয় মুরগি ও ডিমের ব্যবসায়ীরা এ প্রকল্পের মাধ্যমে লাভবান হবেন। “সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ  প্রজেক্ট (এসইপি)” প্রকল্প আয়োজিত সুপণ্যের এই মেলায় ১২ টি স্টলে বিভিন্ন সংস্থা, দেশি মুরগি ও ডিমের খামারিরা তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে অংশগ্রহণ করেন।
গ্রামীন জন উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন মহিন বলেন, আমাদের দেশ থেকে দিন দিন দেশি মুরগি, ডিম ও মহিষের মাংস হারিয়ে যেতে বসেছে। আমিষের চাহিদা মেটাতে এসব আমাদের টিকিয়ে রাখতে হবে। ধিরে ধিরে হারিয়ে যাওয়া দেশি মুরগি ও উৎপাদনশীল মহিষের মাংস সম্পর্কে মানুষের মধ্যে আরো প্রচার ও প্রসার কার এবং টিকিয়ে রাখার জন্য আমরা এ মেলার আয়োজন করেছি। এখানে মহিষের মাংস ও দুধ থেকে উৎপাদিত বিভিন্ন পণ্য এবং দেশি মুরগি ও ডিম থেকে উৎপাদিত বিভিন্ন পণ্যের সমাহার করা হয়েছে। দেশি মুরগি ও মহিষ যেনো আমাদের মধ্য থেকে হারিয়ে না যায় সেই জন্য আমাদের এই উদ্যোগ।
মেলায় মোট ১২টি স্টলে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের নিজস্ব খামারে  উৎপাদিত নিরাপদ দেশি মুরগি, ডিমসহ গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়িত বিভিন্ন প্রকল্পের উৎপাদিত পণ্যসমূহ প্রদর্শন করা হয়। জানালা বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক বাস্তবায়িত, পিকেএসএফ ও গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা(জিজেইউএস) এর সার্বিক সহযোগিতায় ২ দিন ব্যাপী এ মেলার মাধ্যমে নিরাপদ সুপণ্যের  বাণিজ্যিক প্রসার হবে বলে আয়োজকেরা আশাবাদী।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।