ভোলায় ট্রাফিক পুলিশের জনসচেতনামূলক প্রচারাভিযান

ইমরান হোসাইন ॥ ভোলা থানা ও ট্রাফিক পুলিশের যৌথ অভিযানে হেলমেট না পরায় ট্রাফিক আইন অমান্য করায় মোটরসাইকেল আটক করেছে ট্রাফিক পুলিশ। যাদের হেলমেট ছিলো তাদেরকে শর্তকতামূলক জরিমানা বিহীন ছেড়ে দেওয়া হয়। রোববার (১৯ মার্চ) সকাল ১০টায় শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এবারের অভিযানটি সড়ক পথে দূর্ঘটনার হার কমাতে হেলমেট না পরায় ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন পানের আরৎ নামক পয়েন্টে মোটরসাইকেল আটক করে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর ৯২ (১) ধারায় হেলমেট বিহীন মোটরসাইকেল চালানোর অপরাধে ৭ জনকে মামলা ও জরিমানা করা হয়। এসময় অভিযান পরিচালনা করেন ভোলা জেলার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আ. গনি, টিআই মুশফিক ও কর্মরত সার্জেন্টগণ।
অভিযানে নেতৃত্ব দানকারী জেলার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আ. গনি জানান, হেলমেট না পরায় এবং ট্রাফিক আইন অমান্য করায় ৭ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। তিনি জানান, এটা জরিমানা নয়; মানুষকে সচেতন করাই ছিল তাদের লক্ষ্য।
এসময় ভোলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম উপস্থিত হয়ে বলেন, সবার আগে নিজের নিরাপত্তা, হেলমেট বিহীন কেহই যেন মোটরসাইকেল নিয়ে বের না হয়। কারণ মাথায় হেলমেট পরে মোটরসাইকেল চালালে দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাওয়ার একমাত্র উপায়। সেক্ষেত্রে দূর্ঘটনা এড়াতে নিজের দায়িত্ব মোতাবেক জীবন রক্ষার্থে মোটরসাইকেল চালানোর সময় অবশ্যই হেলমেট সঙ্গে নিয়ে বাহিরে যাওয়া আবশ্যক। জীবন ক্ষণিকের হলেও শরীর রক্ষা করার দায়িত্ব প্রত্যেকেরই। তাই সবার প্রয়োজন মোটরসাইকেল চালানোর সময় হেলমেট ব্যবহার করা।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।