লালমোহনে ব্রি ধান-৯৩ চাষে কৃষকের সাফল্য

ডেস্ক রিপোর্ট ॥ নতুন জাতের ব্রি ধান-৯৩ চাষে সফলতা পেয়েছেন ভোলার লালমোহনের কৃষকরা। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে লালমোহনের কালমা, ধলিগৌরনগর ও চরভূতাসহ পাঁচটি ইউপির ২৫ জন কৃষককে পরীক্ষামূলকভাবে চাষের জন্য বিনামূল্যে ব্রি ধান-৯৩ প্রদান করা হয়। কৃষকরা এ ধান চাষ করে প্রতি হেক্টর জমিতে গড়ে ৬.১৫ টন ফলন পেয়েছেন।
জানা যায়, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউটের আমন ধানের নতুন জাত ব্রি ধান-৯৩। এর চাল মাঝারি মোটা ও সাদা। লালমোহনে এ বছর প্রায় ১০ হেক্টর জমিতে ব্রি ধান-৯৩ চাষ হয়েছে। অন্যান্য জাতের ধানের চাইতে অন্তত ২০ দিন আগে এ ধান কাটা সম্ভব হয়।
প্রথমবারের মতো ব্রি ধান-৯৩ চাষ করা লালমোহনের চরভূতা ইউপির কৃষক মো. সেলিম মিয়া বলেন, বিনামূল্যে কৃষি অফিস থেকে এ ধানের বীজ দিয়েছে। এরপর ব্রি ধান-৯৩ চাষ শুরু করি। অন্যান্য ধানের চাইতে এ ধান চাষে খরচ ও পরিশ্রম তুলনামূলকভাবে অনেকটা কম। আর ফলনও ভালো পাওয়া গেছে। এতে করে ইনশাআল্লাহ অধিকলাভবান হতে পারবো।
এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আহসান উল্যাহ বলেন, লালমোহনে যারা নতুন জাতের ব্রি ধান-৯৩ চাষ করেছেন তারা আশানোরূপ ফলন পেয়েছেন। আমরা সব সময় এসব কৃষকদের পরামর্শ দিয়েছি। এছাড়া আগামীতে যদি কেউ নতুন জাতের এ ধান চাষে আগ্রহী হয় তাদেরকেও কৃষি অফিস থেকে সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।