বোরহানউদ্দিনে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে হামলা ॥ আহত-১

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলা দেউলা ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ডে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে সুরমা (৪০) উপর আতর্কিত হামলার অভিযোগ উঠেছে কাশেম মাতব্বর (৫৫), মোঃ মন্নান মাতাব্বর (৯০), মো রায়হান মাতাব্বর (২২) এর বিরুদ্ধে। এমন অভিযোগ করেন হামলা আহত মোসম্মৎ সুরমা বেগম।
সুরমা বেগম বলেন, আমি আমার বাসুর ইমাম হোসেন এর কাছ থেকে একটি গাছ ক্রয় করেছি। গাছটি মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় আমার ক্রয় করা গাছ কাটতে গেলে পার্শ্ববর্তী কাশেম মাতাব্বর গংরা আমার উপর আতর্কিত হামলা করে। এতে আমি অসুস্থ হয়ে বর্তমানে বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছি।
এদিকে অভিযুক্ত আবদুল মান্নান মাতাব্বর বলেন, তারা গাছ কাটতে শুরু করলে আমি বাধা দিলে আমার মাথায় আঘাত করে। পরে রায়হানের সাথে ধাক্কা-ধাক্কি হয়।
এদিকে গাছের মালিকানা দাবি করে ইমাম হোসেন বলেন, আমি গাছটি সুরমা বেগমের কাছে সাড়ে ৪ হাজার টাকা বিক্রি করছি। গাছটি আবদুল মান্নান মাতাব্বর দাবি করলে আমার সাথে যোগাযোগ করতো। তারা কেন নিরিহ মহিলাকে মারধর করল ?
গাছ কাটতে আসা শ্রমিক রিয়াজ জানান, আবদুল মান্নান বাধা দিতে এসে তার হাতের লাঠি দিয়ে সুরমা বেগমকে দুটি বাড়ি দেয়। পরে তাদের মধ্যে তর্কবিতর্ক হলে, কাশেম ও রায়হান তাকে মারধর করে।
দেউলা ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার ফয়েজ বলেন, বিষয়টি আমি জেনেছি। বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে আহত সুরমা বেগমকে দেখে এসেছি।
বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনির হোসেন মিয়া জানান, এক পক্ষ অভিযোগ দিয়েছে, জিডি হয়েছে। অন্য পক্ষ অভিযোগ দিলে তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।