কারিগরি শিক্ষা থাকলে বেকার থাকার কোন ভয় থাকে না – এমপি শাওন

ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেছেন, শিক্ষিত তরুণদের বেকারত্ব দূর করতে হলে কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। বেকারত্ব থেকে বেরিয়ে আসতে হলে কারিগরি অথবা কর্মমূখী শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করলে চাকুরী না পেলেও কাজ করে চলতে পারবে। গতানুগতিক পড়ালেখার চেয়ে কারিগরি শিক্ষায় হাতে কলমে শিক্ষা দেয়া হয় বেশি যাতে এখান থেকে গিয়ে সে নিজের ক্যারিয়ার সমৃদ্ধ করতে পারে। বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গেছে যে দেশে কারিগরি শিক্ষার হার যত বেশি সে দেশের মাথাপিছু আয় তত বেশি। আমাদের দেশকে উন্নত দেশে পরিনত করতে হলে তরুণ প্রজন্মকে কাজে লাগাতে হবে। কারিগরি শিক্ষা থাকলে বেকার থাকার কোন ভয় থাকে না। জীবনমূখী শিক্ষা হলো কারিগরি শিক্ষা।

‘কারিগরি শিক্ষা নিলে, দেশ বিদেশে কর্ম মিলে’ এ প্রতিপাদ্যে ভোলার লালমোহনের হাজী মো. নূরুল ইসলাম চৌধুরী ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে ৬ষ্ঠ ব্যাচের প্রশিক্ষনার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এমপি শাওন।

এমপি শাওন আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে দেশের অন্তত ৫০ শতাংশ শিক্ষার্থীকে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করতে কাজ করে যাচ্ছে। বিশ^মানের জ্ঞান-বিজ্ঞান সমৃদ্ধ ও প্রযুক্তি দক্ষতানির্ভর সমাজ গঠনে কারিগরি শিক্ষার প্রসারে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে বর্তমান সরকার। এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে সকলকে সহযোগিতা করতে হবে। তবেই সোনার বাংলা গড়ে উঠবে।

রোববার দুপুরে হাজী মো. নূরুল ইসলাম চৌধুরী মহাবিদ্যালয় হলরুমে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এসইআইপি প্রকল্পের আওতায় ও রিহ্যাবের বাস্তবায়নে বিভিন্ন ট্রেডের ৭৫জন কারিগরি প্রশিক্ষনার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা শেষে ৮ লক্ষ ১০ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা হিসেবে প্রদান করেন এমপি শাওন। এছাড়াও প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
হাজী মো. নূরুল ইসলাম চৌধুরী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মো. নূরুল আমিন শাজাহানের সভাপতিত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন তজুমদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক দেওয়ান, লালমোহন পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক শফিকুল ইসলাম বাদল প্রমুখ।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।