ভোলার শ্রেষ্ঠ খামারী হিসেবে ডেইরি আইকন পুরস্কার-২২ পেলেন স্বপন চেয়ারম্যান

নিজ শ্রমে ডেইরি খামার ও ফিসারি ব্যবসা এবং সবজি চাষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ভোলা সদর উপজেলার দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের ৩ বারের সফল ইউপি চেয়ারম্যান ও ভোলা জেলা ডেইরি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইফতারুল হাসান স্বপন। তিনি একজন সফল খামারি। তার খামার দেখে আশপাশের এলাকার মানুষ এখন গরু পালনে উদ্যোগ নিয়েছে। সফল খামারী হিসেবে তিনি ডেইরি আইকন পুরস্কার ২০২২ পেয়েছেন স্বপন।


অধিকগুণে গুণাবলী স্বপন জনপ্রতিনিধিতে যেমন সফল রাজনীতিত্বে তিনি সফল ব্যক্তি হিসেবে পরিচিতো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ এমপি এর আপন ভাতিজা ইফতারুল হাসান স্বপন। চলমান উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় অংশীদারিত্বের লক্ষ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে বিগত ২০০৮ সালের প্রথম দিকে ‘সমতা খামার বাড়ী গড়ে তোলে ২০টি গরু পালন শুরু করেন তিনি। পাশাপাশি নিজ গ্রাম দক্ষিণ দিঘলদীতে নিজস্ব জমিতে ফিসারি ব্যবসা পরিচালনা করে থাকেন। বর্তমানে তার খামারে প্রায় ৮৭০ মত গরু রয়েছে।


ইফতারুল হাসান স্বপন প্রতি বছরই ঈদুল আযহার আগে নিজেদের খামারে পালন করা বিভিন্ন প্রজাতির ষাড় বিক্রি করে আয় করে থাকেন। বিগত কয়েক বছর ধরে নিজ খামারে পালন করা গরু বিক্রি করে এখন সফল ব্যবসায়ীদের একজন তিনি। এ ছাড়া জেলা ডেইরি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
ইফতারুল হাসান স্বপন জানান, ইউপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নিজস্ব অর্থায়নে ২০০৮ সালে সমতা খামার বাড়ী শুরু করেন। আজ সমতা খামার বাড়ীতে প্রায় ১২৫শ এর অধিক কর্মচারী খামারে কাজ করেন। গরু পালন, মাছ চাষ, সবজি বাগানসহ নানামুখী ফলের চাষ রয়েছে সমতা খামার বাড়ীতে। সমতা খামার বাড়ীর কল্যাণে ১২৫শ পরিবারের প্রধানদের হয়েছে কর্মসংস্থান। যা একজন জনপ্রতিনিধির জন্য বিরল দৃষ্টান্ত।
তিনি আরও বলেন, নিজের সখ এবং ডিজিটাল বাংলাদেশে কৃষিতে অবদান রাখাই তার মুল লক্ষ্য। তাই নিজেই উদ্যোগী হই খামার প্রতিষ্ঠায়। একদিকে আমার কোরবানীর গরু কিনতে হচ্ছে না। অন্যদিকে নিজের তদারকিতে গরু লালন পালন করার তৃপ্তিই অন্যরকম।
খামারে কর্মরত শ্রমিক বলেন, ‘আমাদের খামারের গরুর খাবারের জন্য দেশীয় কাঁচাঘাস ও খরকুটো ছাড়াও অন্যান্য সব খাবার ভেজালমুক্ত অবস্থায় নিজ হাতে তৈরি করি। এলাকাতে নয় শুধু পুরো জেলায় আমাদের খামারের গরুর আলাদা কদর রয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও সম্পূর্ণ ভেজালমুক্ত খাবার খাইয়ে গরু মোটাতাজা করেছি। ঈদুল আযহায় কোরবানীর জন্য স্থানীয় এলাকার গরু ক্রেতারা আমাদের এখান থেকে গরু ক্রয় করেন।
স্থানীয়রা জানান, চেয়ারম্যান ইফতারুল হাসান স্বপন গরুর খামারে গরু মোটাতাজা করে উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। একজন জনপ্রতিনিধি হয়েও নিজের খামারে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন, ফিসারি ব্যবসা পরিচালনা করছেন। তার এ সফলতা দেখে এলাকার অনেকেই গরু পালন করে ও ফিসারী ব্যবসায় নিজেদের সাবলম্বী করার চেষ্টা করছে। তিনি ৪.৮৫ হেক্টর জমিতে উচ্ছ ফলনশীল জাতের আম চাষ করে বিপুল পরিমাণ অর্থ আয় করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।