সর্বশেষঃ

ভোলায় জোরপূর্বক জমিদখল করে ঘর উত্তোলন, বাঁধা দেওয়ায় তিন নারীকে পিটিয়ে আহত

ভোলা সদর উপজেলা পশ্চিম ইলিশা ১নং ওয়ার্ডে মুগুল আহমেদ হাওলাদারের জমিতে জোরপূর্বক ঘর উত্তোলন করেন তার ভাই ভাতিজারা এসময় বাঁধা দেওয়ায় তিন নারীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।
বুধবার পশ্চিম ইলিশা ১নং ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে।
বর্তমানে আহতরা ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
আহত ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মুগুল আহমেদ তার ভাতিজি জামাই ইউনুসের কাছে ৪ শতাংশ জমি বিক্রি করেন এবং ওই জমি দীর্ঘ বছর তিনি ভোগ দখল করে আবার তার শ্যালকের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন।
ইউনুস কে দখল বুঝিয়ে দেওয়া জমিতে না গিয়ে জোরপূর্বক ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে মুগুল আহমেদের দখলীয় জমিতে ঘর উত্তোলন করেন ইউনুসের শ্যালক বিল্লাল গংরা।
এসময় আশরাফ হাওলাদারের ছেলে ইউসুফ, কালাম হাওলাদার, কালুমাঝির ছেলে কবির, সৈয়দ আহমেদের ছেলে জাহাঙ্গীর মিস্ত্রী মশু হাওলাদারের ছেলে বিল্লালসহ ৩০/৩৫ জনের একটি গ্রুপ মুগুল আহমেদ গ্রুপের মহিলাদের উপর হামলা করেন এতে মুগুল আহমেদ এর স্ত্রী আনোয়ারারা পুত্রবধূ নাসরিন ও মুক্তা আহত হয়।
এবিষয়ে বিল্লাল গ্রুপের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানান এটা আমাদের ক্রয়কৃত সম্পত্তি কিন্তু আমাদের জমিতে আমরা ঘর উত্তোলন করতে আসলে বাঁধা প্রদান করেন। 
ইলিশা ফাড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক সিদ্দিকুর রহমান বলেন খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি এবং আগামীকাল দু’পক্ষের কাগজপত্র নিয়ে বসার তারিখ দেওয়া হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।