ভোলায় সবুজ বাংলা কৃষি খামার পরিদর্শন শেষে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক

দেশে কোন দুর্ভিক্ষ নেই

খাদ্য নিয়ে দেশে কোনো দুর্ভিক্ষ নেই বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, দেশে কোনো হাহাকার নেই। খাদ্যশস্য যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। বিএনপি তাদের ভাঙা রেকর্ডার বাজিয়ে দেশের পরিবেশ ঘোলাটে করতে চায়। রোববার (১০ এপ্রিল) দুপুরে ভোলা সদর উপজেলা চর মনসা গ্রামে জেলার শ্রেষ্ঠ চাষি ইয়ানুর রহমান বিপ্লব মোল্লার সবুজ বাংলা কৃষি খামার পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
আবদুর রাজ্জাক বলেন, সবজির দাম বেশি হলেও দেশে কোনো দুর্ভিক্ষ নেই। বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব সরকার। কৃষকদের সব ধরনের ভর্তুকি দিচ্ছে। অকাল বন্যায় যেসব কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সরকার তাদের প্রণোদনা দেবে। এ বছর সরকার কৃষককে ২৮ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দেবে। সরকার শত প্রতিকূলতার মধ্যেও সারের দাম বাড়ায়নি বলে জানান মন্ত্রী।
মন্ত্রী বলেন, ভোলার মাটি পেঁয়াজ চাষের জন্য উপযোগী। তাই এখানকার চাষিদের পেঁয়াজ চাষে আগ্রহী করার জন্য সবধরনের সহযোগিতা করবে সরকার। আবাদ বাড়লে বাজারে পেঁয়াজের সংকট আর থাকবে না বলে জানান তিনি। এর আগে মন্ত্রী ভোলায় সমন্বিত ফল বাগান, লবণাক্ত জমিতে তেল জাতীয় ফসল ও পেঁয়াজের মাঠ পরিদর্শন করেন। ভোলাতে পেঁয়াজ চাষে সফলতা পাওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন কৃষিমন্ত্রী। পরে মাঠে কৃষকদের সাথে কথা বলেন।


মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশকে এখন আর বিদেশি সহযোগিতায় চলতে হয় না। এ দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ। দেশে কৃষির উন্নয়নে কাজ করছে সরকার। কৃষিকে লাভজনক করা করা হচ্ছে। আগে কৃষককে বাঁচতে হবে, পরে অন্য উন্নয়নের কথা চিন্তা করা হবে। তিনি আরও বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেনের টানাপোড়েন ও করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বছর কৃষিতে সর্ববৃহৎ ভতুর্কি দিয়েছে সরকার। যা পৃথিবীর কোনো রাষ্ট্র করতে পারেনি।
মাঠ পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) মহাপরিচালক মো. শাহজাহান কবীর, জেলা প্রশাসক তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ফজলুল কাদের মজনু মোল্লা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু প্রমুখ। এর আগে সকাল ১১টায় ভেদুরিয়া ফেরীঘাটে মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল কাদের মজনু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন টুলুসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা।
এছাড়া বিকেলে ভোলা জেলা পরিষদ চত্বরে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন কৃষিমন্ত্রী। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত মতবিনিময় সভায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব সায়েদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কৃষি অধিপ্তরের পরিচালক বেনজীর আহমেদ, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) মহাপরিচালক মো. শাহজাহান কবীর, ভোলা জেলা প্রশাসক তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল কাদের মজনু ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামসহ আওয়ামীলীগের সকল অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
প্রসঙ্গত, ইয়ানুর রহমান বিপ্লব মোল্লার সবুজ বাংলা কৃষি খামারের মাধ্যমে ভোলায় পেঁয়াজ চাষে বিপ্লব ঘটিয়েছে। ইতোমধ্যে তিনি অনেকগুলো পুরস্কার পেয়েছেন। এবছর তিনি ২০ একর জমিতে ১০০ হেক্টর মেট্রিক টন পেঁয়াজের আবাদ করে সফলতা পেয়েছেন। পাশাপাশি আদা ও বিভিন্ন প্রজাতির আম চাষ করছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।