ভোলার চরসামাইয়ার সাবেক ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতিকে পিটিয়ে জখম

ভোলা সদর উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ শামিমকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় সিরাজ গংদের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার দুপুরে আনুমানিক ১.৩০ মিনিটের সময় এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, সদর উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডে গোলাম মোহাম্মদ পন্ডিত বাড়িতে জমি জমা নিয়ে দুই ভাই জাহাঙ্গীর আলম ও সিরাজ আলমদের মধ্যে শালিস মিমাংসায় চলে। শালিস মিমাংসা চলাকালে ছোট ভাই সিরাজ আলম ভুয়া কাগজ দ্বারা বড় ভাই জাহাঙ্গীর আলম এর কাছে ২ একর ৪২ জমি দাবি করে স্থানীয় বিচারকের কাছে। বিচারে ছোট ভাই সিরাজ জমি না পেয়ে শালিসি মিমাংসার ভিতরে বিচারকের সামনে হট্টগোল করে একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর আলম এর ছেলে ছাত্রলীগ নেতা সামিম তার চাচাকে থামাতে আসলে পিছনের থেকে সিরাজের নেতৃত্বে আসা সাহে আলম এর ছেলে ফারুক, সিরাজ, সোহরাব, ইব্রাহিম দৌড়ে এসে রড ও লাঠি সোডা দিয়ে এলোপাতাড়ি সামিমকে মারধর করে রক্তাক্ত করার সময় শামিমকে তার মা রক্ষা করতে আসলে মা এবং বাবা উভয়ই সিরাজ গংদের হাতে আহত হতে হয়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয়রা ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। আহতরা ভোলা সদর হাসপাতালের পুরুষ সার্জারি ওয়ার্ড ও একজন মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি থেকে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।
জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার ভাই হঠাৎ কোন রকমেন কথা বার্তা না বলে সিরাজ আমার কাছে দলিল চায়। আমার দলিল রেখে রুপালি ব্যাংক থেকে ৫ লাখ টাকা নিবেন এই প্রস্তাবে আমার ছেলে রাজি না হয়ে আমাকে বাধা দিলে আমি অস্বীকার করি। অস্বীকার করার কারণে সিরাজ আমার ছোট ভাই তিনি বিচার মিলান। তিনি বিচারে ২ একর ৪২ জমি দাবি করে কোন জমি না পেয়ে বেপরোয়া হয়ে পড়ে এই কান্ড ঘটান। আজকে শালিসি মিমাংসার ভিতরে বিচারকের সামনে মারধর করে আমাকে মারতে আসলে আমার ছেলে দৌড়ে এসে থামাতে চাইলে তাকেও মারধর করে এবং তার মাকেও মেরে রক্তাক্ত করে তারা এখন সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। তিনি বলেন, আমি মামলা দায়ের প্রস্তুতি নিচ্ছি ওসি সাহেব এর সাথে কথা হয়েছে।
এ ব্যাপারে সিরাজের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অভিযোগটি তদন্তের জন্য এসআই রঞ্জিতকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।