সর্বশেষঃ

ভোলায় গণটিকা নিতে কেন্দ্রগুলোতে ভিড়, প্রথম দিন ৪৬ হাজার ২শ’ জনকে টিকা প্রদান

সারাদেশের মতো দ্বীপজেলা ভোলায়ও গণটিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই প্রতিটি টিকা কেন্দ্রে টিকা নিতে আগ্রহীদের ভিড় দেখা গেছে। সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করে টিকা গ্রহণকারীরা টিকা কেন্দ্রে আসছেন টিকা নিতে। ভোলায় ৬৮ ইউনিয়ন এবং ৩ টি পৌর সভার ৯৫ টি কেন্দ্র ৪৬ হাজার ডোজ গণটিকা দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে সকাল থেকেই টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত প্রতিটি বুথে ২শ’ জন করে চীনের সিনোফার্মার প্রথম ডোজ টিকা প্রদান করা হয়েছে। বিষয়টি সন্ধ্যার পওে নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন ডা: কে এম শফিকুজ্জামান।


এদিকে টিকা কেন্দ্রে যাওয়া প্রত্যেককে নিবন্ধন করে টিকা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্তরা। টিকাদান কেন্দ্রে বয়োজ্যেষ্ঠ, নারী ও প্রতিবন্ধীদের অগ্রাধিকার প্রদান করা হচ্ছে। সকালে ভোলার উপশহর বাংলাবাজার ফাতেমা খানম মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে গণটিকা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন ভোলা জেলা প্রশাসক মো: তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার ও সিভিল সার্জন ডা: কে এম শফিকুজ্জামান।


ভোলা পৌরসভায় অন লাইনে টিকা কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান। এ সময় তিনি সবাইকে আগ্রহ সহকারে টিকা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। বিনামূল্যে জনগণের জন্য টিকা কার্যক্রম চালু করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান মেয়র মনিরুজ্জামান মনির। শনিবার (৭ আগষ্ট) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ৪৬ হাজার ২শ’ জনকে গণটিকা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডাঃ কে এম শফিকুজ্জামান। এর মধ্যে ভোলা, লালমোহন ও চরফ্যাশন পৌরসভায় ৫ হাজার ৪শ’ জনকে এ টিকা দেওয়া হয়েছে। বাকি টিকা রবিবারে দিয়ে শেষ করা হবে বলে আশা তার।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।