সর্বশেষঃ

ভোলার বাংলাবাজারে লকডাউনের প্রথম দিনে সচেতনতামূলক অভিযান

করোনা ভাইরাসের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সারাদেশে সাতদিনের কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। আজ সর্বাত্মক লকডাউন এর প্রথম দিনে ভোলার উপশহর বাংলাবাজারে সচেতনতামূলক অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

অভিযানে বাংলাবাজার সকল ব্যবসায়ী ও সকল পথচারীদের স্বাস্থ্য বিধি মানতে মাইকিং করা হয়। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সকলকে মাইকিং করে সচেতন ও করা হয়। এসময় বলা হয় অপ্রয়োজনে কেউ যেন বাসা থেকে বের না হয়।

ব্যস্ততম শহরগুলো প্রায় জনশূন্য। শুধুমাত্র খেটে খাওয়া কিছু সংখ্যক মানুষ নিজের পরিবারের ক্ষুধা নিবারণের জন্য রাস্তায় নামতে হচ্ছে। এছাড়া মানুষ খুব একটা ঘর থেকে কম বের হচ্ছে। কিছু সংখ্যক বের হচ্ছে তাদের প্রয়োজনের তাগিদে।

উপশহরের মার্কেট দোকানপাট সব বন্ধ রয়েছে। ভোলা টু চরফ্যাশন সড়ক থেকে শুরু করে দৌলতখান সড়ক এবং বাঘমারা ব্রিজ সড়কগুলোতেও দুই- একটি রিক্সা ও ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা দেখা গেছে।

জরুরি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় সার্ভিসের আওতায় (ফার্মেসী, মুদি দোকান, কুরিয়ার সার্ভিস এবং কাঁচাবাজার) সকল প্রতিষ্ঠানের স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল নিরাপত্তা নিশ্চিত করে খোলা রয়েছে।

বুধবার (৩০ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ মানুষের চলাচলের উপর বিধিনিষেধ আরোপ করে ২১ দফা নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে।

এতে উল্লেখ করে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস জনিত রোগের (কোভিড -১৯) সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতিতে ১ জুলাই সকাল ৬ টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হলো।

অভিযান পরিচালনা করেন, ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ও দৌলতখান উপজেলার সহকারী কর্মকর্তা (ভূমি) মহুয়া আফরোজ। দৌলতখান উপজেলার নির্বাহী কর্মকতা আক্তার হোসেন ও বাংলাবাজার পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা ও দৌলতখান উপজেলার চেয়ারম্যান মন্জুর আলম খান ও ভাইস চেয়ারম্যান মো: সিদ্দিক মিয়া এবং পৌর মেয়র জাকির তালুকদার দক্ষিণ দীঘলদী এর প্যানেল চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ও দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিনের পল্লী বিদ্যুৎ এর পরিচালক হারুন অর রশীদ ও বাজার কমিটির সকল সদস্যবৃন্দ।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।