সর্বশেষঃ

ভোলায় মুনিয়া হত্যাকান্ডে আনবীরের গ্রেপ্তার দাবী

ভোলার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন মুনিয়াকে হত্যা করা হয়েছে দাবী করে আনবীরকে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি দাবী করেছে। সোমবার ৩রা মে ভোলা মিউনিসিপ্যাল কো অপারেটিভ ভবনে এক প্রতিবাদ সভায় এ দাবী করা হয়।
মানবাধিকার কর্মী মোবাশ্বির উল্লাহ চৌধুরীর সভাপতীত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা সুজন’র অন্যতম নেতা আ.ন.ম রিয়াজ উদ্দিন, সহকারী অধ্যাপক কামরুল আহসান, সহকারী অধ্যাপক বাসেদ হোসেন, নারী নেত্রী বিলকিস জাহান মুনমুন, সমাজ কর্মী আলমগীর গোলদার, মানবাধিকার কর্মী মোঃ হোসেন, সাংস্কৃতিক কর্মী বাহাউদ্দিন, প্রকৌশলী চিত্তরঞ্জন শীল, শিক্ষক নেতা গোলাম মাহমুদ ও মোঃ ইব্রাহীম প্রমুখ।
সভায় বক্তাগন বলেন, মুনিয়ার বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কায় ফ্লাট মালিকের কাছে ফ্লাট থেকে পালিয়ে যেতে সহযোগীতা চেয়েছিলেন। তার মানে মুনিয়া বেচে থাকার জন্যে পালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। সেখানে সে আত্মহত্যা করেছে মানা যায়না। তাকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে মনে করা হয়। এ হত্যাকান্ডে আনবীরের মা ও স্ত্রীকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা উচিৎ।
সভার সভাপতি মোবাশ্বর উল্লাহ চৌধুরী বলেন, বসুন্ধরার এম ডি আনবীর অসহায় মুনিয়াকে প্রলুদ্ধ করে বনানীতে রেখে ১ বছর ধরে স্ত্রীর মত ব্যবহার করেছে। অথচ তাকে বিয়ে করেনি। সন্দেহাতীতভাবে এটি ধর্ষণ পর্যায়ের ঘটনা। এক বছর পর মুনিয়া কুমিল্লায় চলে যাবার পর আনবীর আবারও তাকে বিয়ে করবে বলে গত মার্চ মাসে তাকে ঢাকা নিয়ে আসে এবং ২ মাসের মাথায় মুনিয়ার অপমৃত্যু হয়।
মোবাশ্বির উল্লাহ চৌধুরী দাবী করেন বসুন্ধরার এমডি সায়েম সোবহান আনবীর বিয়ের প্রোলবনে মুনিয়াকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষন করেছে এবং শেষে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছে। এ হত্যাকান্ডের সাথে তার মা ও স্ত্রীর সংশ্লিষ্ঠতা রয়েছে কিনা তাদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার। তিনি মুনিয়ার অপমৃত্যু নিয়ে জাতীয় পত্রিকা ও বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ভূমিকায় ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করে বলেন যথার্থ সাংবাদিকতা করতে না পারলে নিজেদেরকে আর সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া উচিৎ না।


সভা শেষে জেলা প্রশাষকের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি বরাবরে মুনিয়ার অপমৃত্যুর সাথে জড়িত সায়েম সোবহান আনবীরকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চেয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি গ্রহন করেন ভোলার জেলা প্রশাষক মোঃ তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।