সর্বশেষঃ

ভোলার বাণীতে সংবাদ প্রকাশের পর হাসি ফুটলো ইউনুসের মুখে

ছোট বাচ্ছাদের নিয়ে না খেয়ে দিন কাটছে রাজাপুরের ইউনুসের পরিবার, থাকেন টংঘরে এই শিরোনামে গত বুধবার ভোলার পাঠকপ্রিয় দৈনিক ভোলার বাণী ও অনলাইন তরঙ্গ নিউজে সংবাদ প্রকাশের পর স্থায়ী হাসি ফুটলো রাজাপুরের সেই ইউনুস জমাদারের মুখে।
 সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে রাজাপুরের ইউনুসের বিষয়টি প্রথমে তারুণ্যের কর্তব্য নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ভাইরাল করলে বিষয়টি নজরে নিয়ে সাংবাদিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠক ইয়ামিন হোসেন সেই ইউনুসের বাড়ীতে গিয়ে অসহায় ইউনুসের পরিবারের অবস্থা নিয়ে একটি ফেসবুক ও ভোলার বাণীর অনলাইন পেজে লাইভ করেন।
পত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুহুুত্বে মধ্যে ভাইরাল হয় ইউনুসের আকুতি।
সংবাদের পরেই ১৫ দিনের খাদ্যসামগ্রী নিয়ে ছুটে যান বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ ভোলা শাখার আহ্বায়ক আসমাতুল হ্যাপী ও যুগ্ম আহ্বায়ক সাকিব।
এর পরই এগিয়ে আসেন বিভিন্ন দানশীল ব্যক্তিরা, সবাই সবার সামর্থ্যানুযায়ী সহযোগীতা করলে তারুণ্যের কর্তব্য সংগঠনের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করে অসহায় ইউনুস কে একটি নৌকা ও জাল সাবাড় ক্রয় করে শুক্রবার জুম্মা নামাজ শেষে তার হাতে তুলে দেওয়া হয়।
এদিকে ইউনুসের মুখে হাসি ফুটাতে সহযোগীতা করেন প্রবাসী আবুল কাশেম, সাংবাদিক কলামিস্ট আবুল কালাম আজাদ, জিলন খান, ইসলামী আন্দোলন রাজাপুর শাখার দায়িত্বশীল হাফেজ ইব্রাহীম, মোছলেউদ্দিন মিলন, রাকিব শান্ত, মিঠু ও তারুণ্যের কর্তব্য পরিবার।
এদিকে সংবাদ পেয়ে রাজাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান খাঁন ও খাদ্যসামগ্রী পাঠিয়েছেন বলে জানা গেছে। 

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।