ভোলায় দুইদিন ব্যাপী স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মীসভা ॥ দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ॥ আহত-১৬

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করার জন্য বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনা মোতাবেক তৃণমূলকে ঢেলে সাজানোর প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ভোলায় জেলা, সকল উপজেলা ও পৌরসভার জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার ও শনিবার (১৮ ও ১৯ ডিসেম্বর) ভোলা শহরের মহাজন পট্টিস্থ জেলা বিএনপির কার্যলয়ে দুই দিনব্যাপী এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি ও বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম প্রধান মোঃ আজহারুল হক মুকুল।
প্রধান অতিথি’র বক্তবে তিনি সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনারা করো বদনাম, হিংসা-প্রতিহিংসা, পেছনে বসে দলাদলির কথা ভুলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের হাতকে আরও শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
ভোলা জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জামিল হোসেন ওয়াদুদের সভাপতিত্বে ও জেলা সেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক খন্দকার আল-আমিনের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাধারন সম্পাদক ফজলুল কবির জুয়েল, সরদার মোঃ নূরুজ্জামান, রাসেল মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলাম।


এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আকবর হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জাকির হোসেন রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক আকবর আকন, সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান তসলিম, মীর মোস্তাফিজুর রহমান রনি, মুনতাসির আলম রবিন চৌধুরী, জাকির হোসেন মনির,আক্তার হোসেন, মাকসুদর রহমান হিরন, ইব্রাহিম খলিল, দপ্তর সম্পাদক হারুন অর রশিদ সুমন, ভোলা সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নুরে-আলম ফরহাদ, সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব শাহ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক ওজিউল্লাহ সুমন, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক জহিরুল ইসলাম রনি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ প্রমুখ।
এদিকে শনিবার বিকেলে চরফ্যাশনে কর্মীসভায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে নাজিম উদ্দিন আলম গ্রুপ ও নুরুল ইসলাম নয়ন গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১৬ জন আহত হয়েছে। ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আল আমিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
সূত্রে জানা গছে, শুক্রবার ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাথে সকালে ও বিকালে বোরহানউদ্দিন উপজেলা, পৌর শাখা, দৌলতখান উপজেলা, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দল এবং শনিবার লালমোহন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, লালমোহন পৌর স্বেচ্ছাসেবক দল, তজুমদ্দিন স্বেচ্ছাসেবক দল সকালে ও বিকালে চরফ্যাশন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, চরফ্যাশন পৌর স্বেচ্ছাসেবক দল, মনপুরা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীদের সাথে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শনিবার বিকালে স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভা চলাকালীন অবস্থায় ভোলা-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম গ্রুপ সমর্থকদের সাথে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন গ্রুপের সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের সময় দুই গ্রুপের ১৬ জন আহত হয়।
ভোলা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আল আমিন বলেন, চরফ্যাশন উপজেলার কর্মীসভা চলাকালীন সময়ে শ্লোগানকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে এ ধরনের ঘটনা তাদের জন্য অনাকাঙ্খিত ছিল, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।