সর্বশেষঃ

ভোলা ও চরফ্যাশনে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধক ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর

ভোলায় কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড সহ আরো ৮ (আট) টি সহযোগী সংস্থার মাধ্যমে বাস্তবায়িত “সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবা” প্রকল্পের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার ভোলা সদর হাসপাতাল ও চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম বিতরণ করা হয়েছে।
ভোলা সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডঃ মোঃ মুহিবুল্লাহ তাঁর নিজ কার্যালয়ে স্বল্প পরিসরে ভোলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ওয়াজেদ আলীর নিকট থেকে এই সকল সংক্রমণ প্রতিরোধক ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা গ্রহণ করেন।
অন্যদিকে চরফ্যাসন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কমিউনিটি ক্লিনিকে পেশাদারদের ব্যবহারের জন্য সংক্রমণ প্রতিরোধক ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা গ্রহণ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা
ডাঃ শোভন কুমার বসাক।
যুক্তরাজ্য সরকারের দাতা সংস্থা এফসিডিও এর আর্থিক সহায়তায় পরিচালিত ইএইচডি কর্মসূচীর অংশীদারী সংস্থাসমুহ হল- আইপাস, আরএইচস্টেপ, আইসিডিডিআর, বি,সিবিএম, ডিআরআরএ, ডিজিটাল হেলথ্সলিউশন (ডিএইচএস), পার্টনার্স ইন হেল্থ এন্ড ডেভেলপমেন্ট (পিএইচডি) এবং খুলনা মুক্তি সেবা সংস্থা (কেএমএসএস)। প্রকল্প বাস্তবায়নকারি সংস্থা পার্টনার্স ইন হেলথ্ধসঢ়; এন্ড ডেভেলপমেন্ট (পিএইচডি) এর তত্ত্বাবোধানে স্বাস্থ্য বিভাগে পেশাদারদের জন্য ১৪ প্রকার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম ও সংক্রমণ প্রতিরোধক বিতরণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সার্বিক নির্দেশনায় দেশের দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।
উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ওয়াজেদ আলী, ভোলা সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডঃ মোঃ মুহিবুল্লাহ, ভোলা সদর হাসপাতালের আরএমও ডঃ তৈয়বুর রহমান, এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন পিএইচডি এর বিভাগীয় কর্মসূচি সমন্বয়কারী মোঃ মোমেন খান, হেলথ্-কোর্ডিনেটর জনাব জাকির হোসেন এবং রেজাউল করিম ভূইয়াসহ সরকারী/বেসরকারি পর্যায়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিগণ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জনাব ডাঃ মোঃ ওয়াজেদ আল ইউকে এইড, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড এবং পিএইচডি-কে এই করোনা মোকাবেলায় ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামাদি প্রদানের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন “ইএইচডি প্রকল্পের মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবায় করোনাকালীন হ্যান্ড স্যানিটাইজার, স্টেরিলাইজার, স্প্রে মেশিন ইত্যাদি অতিপ্রয়োজনীয় জিনিস বিশেষ করে স্বাস্থ্যসেবায় অধিকগুরুত্বপূর্ণ জিনিস বিতরণ করার জন্য পিএইচডিসহ সকল সংস্থাকে ধন্যবাদ জানান। তিনি সংস্থার কার্যক্রমকে আরো বেগবান ও তৃণমূল পর্যায়ে এর ব্যাপ্তি ছড়িয়ে দেয়ার আহবান জানান।
সভাপতির বক্তেব্যে ভোলা জেলা হাসপাতালের সহকারী পরিচালক বলেন, “মহামারী করোনা কালীন সময়ে এসকল সংক্রমণ প্রতিরোধক ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী স্বাস্থ্যসেবায় আরো গতি আনবে। কাজেই দাতা সংস্থাকে আমার পক্ষ থেকে এবং হাসপাতালের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই।” কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় প্রস্তুতি ও সহায়তা পরিকল্পনা (এনপিআরপি) কে সহায়তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশে সরকার কতৃক গঠিত স্থানীয় কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলা কমিটির সাথে সমন্বয় করে ইএইচডি প্রকল্প বরিশাল বিভাগের ভোলা, পটুয়াখালী ও বরগুনা ৩ টি জেলায় বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।
উল্লেখ্য যে, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড এর সার্বিক যুক্তরাজ্যের দাতা সংস্থা এফসিডিও এর আর্থিক সহযোগিতায় পার্টনারস ইন হেলথ্ধসঢ়; এন্ড ডেভেলপমেন্ট (পিএইচডি) বরিশাল বিভাগের ৩টি জেলার মোট ৮টি উপজেলায় এই প্রকল্পের বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে কাজ করছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।