রাজাপুরে তালিকায় স্বজনপ্রীতি : ত্রাণ বিতরণ না করেই চলে গেলেন কোস্ট ট্রাস্ট 

ত্রাণ বিতরণ না করেই চলে যাচ্ছে কোস্ট ট্রাস্ট । ছবি ভোলার বাণী

ঘুর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়িয়ে সারা দেশের ন্যায় ভোলার রাজাপুরেও নগদ অর্থ এবং ত্রান সামগ্রী প্রদানের কর্মসুচি গ্রহন করেন কোস্ট ট্রাস্ট। এদিকে রাজাপুরে ক্ষতিগ্রস্ত ১০০ পরিবারের মধ্যে এ সহায়তা প্রদান করার জন্য ঐ ইউনিয়নের সংশিষ্ট ইউপি সদস্যদের তালিকা প্রনয়নের জন্য বলা হয়। মেম্বারগন তালিকা প্রনয়নে সামান্য ত্রুটি বিচ্যুতি করার কারনে বিতরণ করা সম্ভভব হয়নি ত্রান ও নগদ অর্থ সহায়তা। ঘটনাস্থল রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে দেখাযায় সদ্য ঘটে যাওয়া ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগীতা করার জন্য কোস্ট ট্রাস্ট নামের একটি সংস্থা।
জনপ্রতিনিধিদের কাছে ১শ ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা চেয়েছে কিন্তু অনেক মেম্বার নিজের ছেলে, ভাইয়ের স্ত্রীসহ আত্মীয় স্বজনের নাম দিয়ে তালিকা করে  জমা দিয়েছে, আজ কোস্ট ট্রাস্ট জনপ্রতি ৩ হাজার টাকা ও আরো একটি ত্রাণের প্যাক দেওয়ার জন্য রাজাপুর পরিষদে আসেন।  এই অনিয়ম এবং ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ নেতাদের সাথে সমন্বয় না করায় নানামুখী বাধার মুখে বিতরণ না করে দিনবর অপেক্ষা করে বিতরণ না করেই ফিরে যান কোস্ট ট্রাস্ট সহায়তা প্রদানকারি টিম।
একটি সংস্থা জেলার ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারণের সহায়তা প্রদানে  কাজ করতে গিয়েও অপরাধ করছেন কিনা এমনটাই প্রশ্ন তুলেন স্থানিয়রা। সারাদিন থেকে বিতরণ না করে  অবশেষে ফেরত এসেছেন কোস্ট ট্রাস্টের প্রতিনিধিও কর্মকর্তাগন। এদিকে প্রণোদিত তালিকায় অনেক ভিত্তবান ব্যাক্তির নাম, আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত বিহীন ব্যাক্তির নাম, ইউপি সদস্যদের ভাইয়ের বউ,এবং ভাইয়ের নাম,তাদের ছেলে মেয়েদের নাম ও আত্মীয় স্বজনের নাম বেশির ভাগ স্থান পেয়েছে বলে দেখা যায় ঐ তালিকাতে। এ বিষয়ে কোস্ট ট্রাস্টের কর্মকর্তা সোহেল এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি রাজাপুরে যাবার কথা থাকলেও যেতে পারিনি আমি ভেদুরিয়াতে ছিলাম। তবে শুনেছি বৈরি আবহাওয়ার কারনে আজ রাজাপুরে ঘুর্নিঝড় আম্ফানে  ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান করা সম্ভব হয়নি।  রাজাপুর ইউনিয়ন আঃলীগ সাধারণ সম্পাদক আঃমান্নান মিয়া বলেন মেম্বার গন ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করতে সমন্বয় না করাতে একটা সমস্যার সৃস্টি হয়। তবে এখন আমাদের সাথে সমন্বিত ভাবে আগামী রবিবার বিতরণের কথা রয়েছে।
রাজাপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন এর বক্তব্য জানতে একাদিকবার ফোন দিলেও তিনি রিছিভ করেননি, অন্যদিকে স্বজনপ্রীতি করা মেম্বাররা আজ পরিষদে আসেননি, তাদের বক্তব্য জানতে ফোন দিলেও রিছিভ করেননি।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।