সর্বশেষঃ

তজুমদ্দিনের চরে হামলা, নারী শিশুসহ ৬ জন আহত

তজুমদ্দিনের চরে হামলার শিকার হাসপাতালে ভর্তি আহতরা। ছবি: ভোলার বাণী।

ভোলার তজুমদ্দিনের চর মোজাম্মেলে কৃষককে জমি থেকে উৎখাতের উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়ে নারী শিশুসহ ৬ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। রাতে চরের ব্লক লিডারদের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে তজুমদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার রুজু করা হয়েছে।

থানায় অভিযোগ ও হাসপাতাল সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ চর মোজাম্মেলের ভূমিহীন কৃষকদের বসবাস করে চাষাবাদের ব্যবস্থা করে দেন চাঁদপুর ইউপি চেয়ারম্যান। চরের অজিউল্লাহ মাঝির ব্লকের দুলাল বাজার মাটির কিল্লা এলাকার আঃ বারেকের ছেলে কৃষক সেলিমকে চরের জমি থেকে উৎখাতের চেস্টা চালায় পার্শ্ববতর্ী অলি মাঝির ছেলে ফারুক মাঝি। এর জের ধরে রবিবার দুপুরে সেলিমের বসতঘর মেরামতের সময় ফারুক মাঝির নেতৃত্বে সিরাজ, ইব্রাহীম, জাকির, ইকবাল, কবির, শামীম সহ ১০-১৫ জন মিলে লাঠিসোটা, দা, ছুরি-ক্রিস, লোহার রড নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এলাপাতারি পিটিয়ে ও কুপিয়ে ইয়ানুর (৪০), শিপন (১২), শাহিনুর (৪৫), সজিব (২০), জাহাঙ্গীর (২২), সোহেল (১৮) কে রক্তাক্ত জখম করে অবরুদ্ধ করে রাখে।পরে চরের ব্লক লিডারদের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে রাতে স্পীডবোড যোগে এনে তজুমদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের আরএমও ডাক্তার হাসান শরিফ জানান, দুইজনের মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন এবং অন্যান্যদের শরীরের বিভিন্ন অংশে ফুলা ও জখমের চিহ্ন রয়েছে। চরের কয়েকজন ব্লক লিডার জানান, ফারুক মাঝি গংরা উশৃংখল প্রকৃতির, এর আগেও কয়েকটি মারামারির ঘটনা ঘটিয়েছে। চাদপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুল আলম জাহাঙ্গীর জানান, এরা ভূমিহীন হওয়ায় চরে বসবাসের সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। কোন রকম বিশৃংখলা মেনে নেয়া হবেনা। উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ জসিমউদ্দিন খান জানান, এ ঘটনায় মামলা গ্রহন করা হয়েছে। যার নং ০৭, তারিখ- ২০/০৪/২০২০ইং। তদন্ত ও আইনী প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।