তজুমদ্দিনে সামাজিক দূরুত্ব নিশ্চিত করতে কাঁচা বাজার মাঠে স্থানান্তর

তজুমদ্দিনে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে কাঁচা বাজার পার্শ্ববর্তী মাঠে স্থানান্তর। ছবিঃ ভোলার বাণী।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ও সামাজিক দূরুত্ব নিশ্চিত করতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যেগে ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারগুলোর মাছ ও কাঁচা বাজার স্থানান্তর করা হয়ে পার্শ্ববর্তী খোলা মাঠে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন হাট বাজারে কাঁচা বাজার ও মাছ বাজারগুলোতে মানুষ একত্র হয়ে মাছসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে সামাজিক দূরুত্ব মানছেনা। এতে সরকারি নির্দেশনার যথাযথ প্রয়োগ যেমন হচ্ছেনা সেই সাথে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য উপজেলা প্রশাসনের উদ্যেগে মাছ, মাংস ও কাঁচা শবজির দোকানগুলো উপজেলা সদর থেকে ডিগ্রি কলেজ মাঠে এবং দক্ষিণ খাসের হাট ও শিবপুর খাসের হাট বাজার পার্শ্ববর্তী হাইস্কুল মাঠে স্থানান্তর করা হয়। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে একটি নির্দিষ্ট পরিমান দূরুত্ব রেখে দোকানগুলো বসানো হয়েছে।
কামাল, রফিকসহ একাদিক ক্রেতা বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ফাঁকা জায়গাতে বাজার হওয়ায় কারও সাথে কারও শরীরের সংস্পর্শ হয় না। নিরাপদ দুরুত্ব বজায় রেখে মাছসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিসিনপত্র ক্রয় করা যায়।
এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে সামাজিক দূরুত্ব মেনে চলা সবচেয়ে বেশি জরুরী। এখানকার হাট-বাজারগুলোতে মানুষের সমাগম গঠে যার কারণে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখা সম্ভব হয় না। এজন্য হাট বাজাগুলোর কাঁচা বাজারকে পাশ্ববতর্ী খোলা মাঠে স্থানান্তর করা হয়েছে। যাতে জনগন ঝুঁকিমুক্তভাবে বাজার সদাই করতে পারে এবং নিরাপদ থাকতে পারে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এ ব্যবস্থা চালু থাকবে এবং উপজেলা প্রশাসন এটি নিয়মিত মনিটরিং করবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।

You cannot copy content of this page