সাড়ে ৭ ঘণ্টার ব্যবধানে বরিশালে করোনা ইউনিটে ২ জনের মৃত্যু

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মাত্র সাড়ে ৭ ঘণ্টার ব্যবধানে করোনা ইউনিটে দুই রোগীর মৃত্যু হলো।

আজ রোববার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪৫ বছর বয়সী ওই রোগীর মৃত্যু হয়। তার বাড়ি পটুয়াখালী সদর উপজেলায়।

এর আগে গতকাল শনিবার রাত ১২টার দিকে এই হাসপাতালে ভর্তির পর ৪৫ বছর বয়সী এক নারী মারা যান। তাকে করোনা ইউনিটে নেওয়ার ১৫ মিনিট পরই তিনি মারা যান।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আজ মারা যাওয়া ব্যক্তির বিষয়ে তিনি বলেন, পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে রেফার করার পর গতকাল বিকেলে ওই রোগীকে এই হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনেরা। তাকে প্রথমে মেডিসিন ইউনিটে এবং পরে করোনা ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। আজ সকালে তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের পরিচালক বলেন, ‘আমাদের এখানে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ কোনো কিট নেই। তবুও রোগীর লক্ষণ দেখে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

এই রোগীর মৃত্যুর বিষয়টি সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানকে (আইইডিসিআর) জানানো হয়েছে বলেও জানান বাকির হোসেন। তিনি জানান, তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী মরদেহ দাফনের ব্যবস্থা করা হবে।

এদিকে, মারা যাওয়া ব্যক্তির শ্বশুর বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তার জামাতা শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় আক্রান্ত ছিলেন।

ওই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে এখন পাঁচজন রোগী ভর্তি আছেন। তারা কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা, সেটা পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে নিশ্চিত বলা যাবে না বলে জানিয়েছে হাসপাতাল সূত্র।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।