সন্তানকে কোচিং সেন্টারে পাঠানোয় অভিভাবকের জরিমানা

সরকারি নির্দেশ অমান্য করে প্রাইভেট পড়ানোর অভিযোগে এক শিক্ষক ও মক্তবে শিক্ষার্থী পড়ানোর দায়ে এক ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে কারাদণ্ড প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে সন্তানকে কোচিং সেন্টারে পাঠানোয় দুই অভিভাবককে জরিমানা করেছে ভ্রাম্য্যমাণ আদালত। শনিবার (১৯ মার্চ) ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সিংগাইর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুনা লায়লা জামির্তা ইউনিয়নে অভিযান পরিচালনা করে ওই দুই অভিভাবককে অর্থদণ্ড দেন বলে বার্তা সংস্থা ইউএনবি’র একটি খবরে বলা হয়।

সেই সাথে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে প্রাইভেট পড়ানোর অভিযোগে এক শিক্ষক ও মক্তবে শিক্ষার্থী পড়ানোর দায়ে এক ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে কারাদণ্ড প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা না ভেবে সন্তানকে কোচিং সেন্টারে পাঠানোর দায়ে জামির্তা ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের মৃত আফছার উদ্দিনের ছেলে নান্নু মিয়াকে দশ হাজার টাকা ও একই অপরাধে ওই এলাকার জবেদ আলীর ছেলে তোতা মিয়াকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কোচিংয়ে পড়ানোর দায়ে জামির্তা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আলমগীর হোসেন এবং মক্তবে পড়ানোর দায়ে মধুরচর জামে মসজিদের ইমাম মো. আশেক এলাহী ও মুয়াজ্জিন মো. আব্দুল লতিফকে সাত দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।