পাঁচ মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ৩২ বছর পর গ্রেফফতার

৫ মাসের সাজা থেকে বাঁচাতে দীর্ঘ ৩২ বছর পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হলো না আরশাদ আলীর (৬২)। আদালত হতে ৫ মাসের সাজা প্রদানের রক্ষায় যখন ঘোষণা করা হয়েছিলো তখন তার বয়স ছিলো ৩০ বছর। আর গ্রেফতারকালে তার বয়স হয়েছে ৬২ বছর। ঘটনাটি ঘটেছে জীবননগর উপজেলার মিনাজপুর গ্রামে।
জীবননগর থানা সূত্রে জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার মিনাজপুর গ্রামের মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে আরশাদ আলীর বিরুদ্ধে ১৯৮৮ সালে ঢাকার গুলশান থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়। যার মামলা নং জিআর ২৭/৩৫। ঐ মামলায় আদালত হতে তাকে ৫ মাসের সাজা প্রদান করা হয়। সাজার রায় ঘোষণাকালে তিনি পলাতক ছিলেন। ৫ মাসের সাজা খাটার হাত থেকে বাঁচতে সেই থেকে গ্রেফতার এড়াতে আরশাদ আলী পলাতক ছিলেন। রবিবার রাতে জীবননগর থানার সহকারী সাব-ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান মিজান ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। সোমবার তাকে চুয়াডাঙ্গা সংশ্লিষ্ট আদালতে প্রেরণ করে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।