রাজধানীতে বাড়িতে ঢুকে দুই কিশোরীকে ‘ধর্ষণ’

রাজধানীর কদমতলী থানা এলাকায় এক বাড়িতে ঢুকে হাত-পা-মুখ বেঁধে দুই কিশোরীকে ‘ধর্ষণ’ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তারও করেছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, সোহেল ব্যাপারী (৩৮), রানা ব্যাপারী (৩২) ও আক্তার আলী (৩৮)।

কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা ইতোমধ্যে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও দিয়েছেন।’

ওসি বলেন, ‘গত শনিবার রাতে এই ঘটনার পরে রোববার একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা দায়েরের পর রোববার রাতেই তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। ’

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, ধর্ষণের শিকার ওই দুই কিশোরীর বয়স ১৩ ও ১৫ বছর। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরী বাসায় একাই ছিল। সেই দিন তার বাসা ফাঁকা থাকায় ওই কিশোরীর বাসায় বেড়াতে আসেন ১৩ বছর বয়সী অপর এক কিশোরী। গত শনিবার রাতে ওই তিন ব্যক্তি কিশোরীর বাসায় ঢুকে দুই কিশোরীর হাত, পা, মুখ বেঁধে ধর্ষণ করেন পালিয়ে যান।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।