২০৪১ সা‌লের ম‌ধ্যে উন্নতরা‌ষ্ট্রের প্র‌তিষ্টা পা‌বে বাংলা‌দেশ : সজীব ওয়া‌জেদ জয়

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ভোলায় ই -এডুকেশন সেবা প্রদর্শন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। ১৬ জানুয়ারী বৃহস্প‌তিবার ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার বিচ্ছিন্ন চ‌রের ১ নং মদনপুর ইউ‌নিয়‌নের চর মদনপুর এর ৩৮ নং মদনপুর চর পদ্মা মকবুল আহম্মেদ জাতীয় করন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র থেকে ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে ই এডু‌কেশন সেবা উ‌দ্ভোধন ক‌রেন তি‌নি।

এসম‌য় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযু‌ক্তি বিষয়ক উপ‌দেষ্টা সজীব ওয়া‌জেদ জয় ব‌লেন, ২০৪১ সা‌লের ম‌ধ্যে এক‌টি উন্নত রা‌ষ্টের প্র‌তিষ্টা পা‌বে বাংলা‌দেশ। যেখা‌নে অাই‌সি‌টি খাত সাম‌নে থে‌কে‌ রে‌মি‌টে‌ন্সের নেতৃত্ব দে‌বে। ‌তি‌নি ব‌লেন, অাই‌টি সেক্টর ও টে‌লিক‌মি‌নি‌কেশন সেক্টরের উন্ন‌তির ফ‌লে ডি‌জিটালাই‌জেশ‌নের মাধ্য‌মে সকল তথ্য প্রযু‌ক্তি সাধারন মানু‌ষের দোর‌ গোড়ায় পৌ‌ছে গে‌ছে। অাইটি সেক্ট‌রে বাংলা‌দেশ ২০২১ সা‌লের ম‌ধ্যে উন্নত রা‌স্ট্রের কাতা‌রে পৌছ‌বে ব‌লে তি‌নি অাশাবাদ ব্যাক্ত ক‌রেন।

এসম‌য়ে সরকা‌রের সকল উন্নয়ন কার্যক্রম নি‌য়ে দৌলতখান – বোরহানউ‌দ্দিন এলাকার সাংসদ আলী আজম মুকুল এর সাথে কথা বলেন সজীব ওয়াজেদ জয়। ‌দৌলতখা‌নের অব‌হেলীত বিচ্ছিন্ন চরের ৩ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতিয়করন করার মধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ‌শিক্ষার অা‌লো পৌছে দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জন‌নেতৃ শেখ হা‌সিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এমপি মুকুল ব‌লেন, সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের ছোঁয়া চরাঞ্চলের মানুষের জীবন মান এর প্রসার ঘটেছে, ডিজিটাল সেবা মানুষের দোড় গোড়ায় পৌছে গেছে, কোন মানুষ ই বিচ্ছিন্ন নয়। এসময় তি‌নি মদনপুর চ‌রে বেরিবাধ ও ১০ শয্যা হাসপাতালের করার দাবী জানান। প‌রে উপ‌স্থিত ছাএ/ছাএীদের সাথে কথা বলেন জয়।

এ টে‌লিকন্ফা‌রে‌ন্সে এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রসাশক মাসুদ আলম সিদ্দিক, পুলিশ সুপার সরকার মোঃ কাওসার, জেলা শিক্ষা অফিসার জাকিরুল হক, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নিখিল চন্দ্র হালদার, দৌলতখান উপজেলা চেয়ারম্যান মন্জুর আলম খান, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা জিতেন্দ্র কুমার নাথ,শিক্ষা অফিসার মোঃ হোসেনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ট ব্যক্তিবর্গ, ছাএ/ছাএী, শিক্ষক গন উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।