ইরানে মসজিদের চূড়ায় ওড়ানো হলো যুদ্ধের লাল পতাকা

মার্কিন বাহিনীর হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ডস আল কুদস বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল কাসেম সোলেইমানি নিহত হওয়ার ঘটনায় ৩ দিনের জাতীয় শোক পালন করছে ইরান।

এরইমধ্যে শোকের প্রথম দিন শনিবার মসজিদে যুদ্ধের প্রতীক ‘লাল পতাকা’ উড়িয়ে দিয়েছে ইরান। এই পতাকা বা ‘লাল ঝান্ডা’ ওড়ানোর অর্থ ইরান যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত। যুক্তরাষ্ট্রকে হত্যার বদলার ইঙ্গিত দিয়ে ইরানের পবিত্র শহর কোমের বিখ্যাত জামকারান মসজিদের চূড়ায় ‘রক্তলাল পতাকা’ উত্তোলন করা হয়।

জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার আহ্বানের প্রতীক হিসাবে এই রক্ত-লাল পতাকা উড়ানো হয়েছে বলে রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি জানিয়েছে।

ওই খবরে বলা হয়, কাসেম সোলাইমানি এবং মার্কিন সেনাদের হাতে নিহত অন্যান্য কর্মকর্তারা নিহত হওয়ার পর এমন বিরল দৃশ্য দেখা গেল ইরানে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো ইরান জামকারান মসজিদে রক্তলাল পতাকা উড়ানো হলো। পতাকাটিতে লেখা, ‘যারা হোসেনের রক্তের বদলা নিতে চায়’।

এদিকে, সোলেইমানি হত্যাকাণ্ডের ‘চরম প্রতিশোধ’ নেয়া হবে বলে যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের হুমকির পর এই ‘লাল পতাকা’র প্রতীকী অর্থ বিপুল বলে জানাচ্ছেন সমরবিদরা।

পাশাপাশি শিয়া সংস্কৃতিতে লাল পতাকার অর্থ, অন্যায়ভাবে রক্তক্ষরণ এবং যার রক্তক্ষরণ হয়েছে তার জন্য প্রতিশোধ নেয়ার আহ্বান। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোম নগরে এভাবে লাল পতাকা ওড়ানো হলো।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।