ভোলায় এইচএসসি পাশ করে জুতা সেলাইয়ের কাজ করে কার্তিক

পড়াশোনা করে কিছু যুবক চাকুরীর জন্য অপেক্ষা করে আর সমাজে নিজেকে প্রকাশ করে শিক্ষিত বেকার কিন্তু এইচএসসি পাশ করেও জুতা সেলাইয়ের কাজ করে সংসার চালাচ্ছেন ভোলা সদর উপজেলার উত্তরদিঘলদী ইউনিয়নে মুন্সির হাট এলাকার কার্তিক চন্দ্র দাস (২৭)।

কার্তিক ঐ এলাকার জহর লাল দাসের দ্বিতীয় ছেলে।
বুধবার দুপুরে কার্তিকের জুতা সেলাইয়ের দোকান চরসামাইয়া শান্তির বাজারে গেলে কথা হয় কার্তিকের সাথে।
কার্তিক জানান অনেক কষ্ট করে আবদুল মান্নান মিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ভোলা সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেছি, টাকার জন্য আর অর্নাসে ভর্তি হতে পারেনি।
চাকুরীর জন্য অনেক আবেদন করেও লাভ হয়নি তাই বাবার পেশা জুতা সেলাইয়ের কাজ করে সংসার চালাচ্ছি।
আপনি একজন শিক্ষিত ছেলে এই কাজ করতে নিজের কাছে কেমন লাগে? এসময় তিনি বলেন সহপাঠীরা দেখলে একটু খারাপ লাগে কিন্তু কি আর করবো বলেন? চাকুরীর পিছনে ঘুরলে তো সংসার চলবে না ভাই। কার্তিক চন্দ্র দাস বলেন আমি হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক কোন রকম জীবন যাপন করি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি এখন আমার যোগ্যতা অনুযারী একটি চাকুরী দিতো তাহলে আমার পরিবার আজীবন কৃতজ্ঞ থাকতাম।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।