বাবা-মাকে মারধর করে ছেলে বললেন, ফাঁসি হলেও ক্ষমা চাইব না

নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় বাবা-মাকে মারধর ও অসম্মান করার অপরাধে শেখ গাজ্জালী হাসান (৩২) নামে এক যুবককে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার রাতে উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের উজিয়ালপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

দণ্ডপ্রাপ্ত শেখ গাজ্জালী ওই গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিনের ছেলে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল ইমরান রুহুল ইসলাম এবং কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম জানান, উজিয়াপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তার বাড়িতে গিয়ে তদন্তে জানা যায়, শেখ গাজ্জালী টাকা-পয়সা ও অন্যান্য তুচ্ছ কারণে বাবা-মায়ের সঙ্গে অশোভন আচরণ ও প্রায় তাদের মারধর করতেন। শুক্রবারও তিনি তার মাকে মারতে কুড়াল নিয়ে দৌড়ানি দেন এবং বাবাকে ছোরা নিয়ে মারতে উদ্ধত হন।

এ ব্যাপারে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বিষয়টি স্বীকার করেন। এ ঘটনায় বাবা-মার কাছে ক্ষমা চাইতে বললে তিনি রাজি না হয়ে, ফাঁসি হলেও ক্ষমা চাইবেন না বলে জানান। অনেক বোঝানোর পরেও তিনি ক্ষমা চাইতে রাজি না হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুজ্জামান জানান, শেখ গাজ্জালীকে শনিবার দুপুরে নেত্রকোণা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।