খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির বিক্ষোভ

খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। শুক্রবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিল বের করেন কেরানীগঞ্জ দক্ষিণ থানা বিএনপি ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের নেতাকর্মীরা। মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
মিছিলে আরও অংশ নেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার মীর হেলাল উদ্দিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহীনসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী।
মিছিল শেষে রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকার যে ক্যাসিনো, জুয়া এবং মাদকবিরোধী অভিযান শুরু করেছে- তা আইওয়াশ মাত্র। ক্রমেই হাস্যকর হয়ে উঠেছে এই কথিত অভিযান। ঢাক-ঢোল-তবলা বাজিয়ে কয়েকটা ‘যদু-মধু’ আটক করার পর এখন মন্ত্রীরা চিৎকার দিয়ে বিএনপির ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। পত্র-পত্রিকা-মিডিয়ায় যেসব গডফাদারদের নাম আসছে তারা বহাল তবিয়তেই রয়েছে। কারণ এই গডফাদারদের পৃষ্ঠপোষক বর্তমান মিডনাইট সরকার।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ অবৈধভাবে ক্ষমতাসীন আসার পর থেকে দেশের উন্নয়ন ঘটেছে শুধুমাত্র মদ, জুয়া ক্যাসিনো, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজির। ঢাকায় কয়েকটি লোক দেখানো অভিযানেই তারা সীমাবদ্ধ। এই সামান্য অভিযানেই জনগণ দেখতে পেয়েছে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ চুনোপুটি নেতাদের ঘরে ঘরে অবৈধ টাকার খনি। কাড়িকাড়ি টাকা, সোনা-দানার খনি। এখন সবার কাছে এটি স্পষ্ট যে, ব্যাংকে কেন টাকা নাই। ভুয়া উন্নয়নের ঠেলায় তাদের প্রতিটি বাড়িই এখন টাকশাল।
সরকারের উদ্দেশে রিজভী বলেন, দেশের সব মানুষ এখনো ভাত পায় না, লাখ লাখ মানুষের জীবন অভাব অনটনে দুর্বিষহ। আর আপনাদের হাজার হাজার নেতা বিদেশে লুটের টাকায় বাড়ি কিনছে। শুধু বিদেশেই নয়, দেশেও তারা অবৈধ ক্যাসিনো উৎসবে মেতে উঠেছে। তিনি বলেন, বর্তমান মিডনাইট সরকার দেশটাকে জুয়াড়িদের আড্ডাখানায় পরিণত করেছে। এখনো মূল অপরাধীরা অধরাই থেকে গেছে। এই দেশ বেশিদিন অনাচার-অবিচার-অন্যায়-দুর্নীতি সহ্য করেনি। এদের ভয়াবহ পরিণতি এগিয়ে আসছে। শাদ্দাদের বেহেশতের মতো এই দুরাচারদের স্বর্গ যে কোনো মুহূর্তে ভেঙে পড়বে।
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে বিএনপির এ নেতা বলেন, জনগণের প্রিয় নেত্রীকে অন্যায় ও অবিচারমূলকভাবে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে। ব্যক্তিগত আক্রোশের শিকার খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি রেখে তিলে তিলে নিঃশেষ করতে পারলেই সরকারের লক্ষ্য পূরণ নিশ্চিত হবে। কিন্তু দেশের জনগণসহ জাতীয়তাবাদী শক্তি দেশনেত্রীকে কারামুক্ত করতে প্রবল সাহস ও উদ্যম নিয়ে রাজপথে নেমে আসবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আমাদের সাইটের কোন বিষয়বস্তু অনুমতি ছাড়া কপি করা দণ্ডনীয় অপরাধ।
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।